১৫ নভেম্বর ,বৃহস্পতিবার, ২০১৮

শিরোনাম

> বিশেষ প্রতিবেদন

 

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

২৩ জুলাই ,সোমবার, ২০১৮ ২২:৪৮:৪৯

‘খারাপ কাজ না করলে ইঞ্জেকশন দিত’


‘খারাপ কাজ না করলে ইঞ্জেকশন দিত’


‘তারা আমার লগে খারাপ কাজ করতে চাইত। খারাপ কাজ না করলে ইঞ্জেকশন দিত। হাত মিলাইবার কথা কইয়া সুঁই ঢুকে দিত। যখন সুঁইগুলা দিত, তখন মাথা ঘুইরা পইরা যাইতাম, অজ্ঞান হইতাম; কিচ্ছু কইতে পারতাম না’- এভাবেই কথাগুলো বলছিলেন সৌদি ফেরত নির্যাতনের শিকার নারী রেখা (ছদ্মনাম)।

গৃহকর্মী হিসেবে সৌদি আরবে গিয়েছিলেন রেখা। সেখানে একটি বাসায় ছিলেন ৭ মাস। কিন্তু এই কয় মাসে বাসার মালিক, মালিকের স্ত্রী ও সন্তানরা তার ওপর অমানবিক নির্যাতন চালান বলে অভিযোগ তার। 

নির্যাতনে মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ঠিকমতো কথাও বলতে পারছিলেন না রেখা। কিছু সঠিক তথ্য দিলেও বেশির ভাগ সময়েই তিনি উল্টাপাল্টা বকছিলেন। অবশ্য বাসার মালিক তাকে ইঞ্জেকশন দেওয়ার পর আর কী হতো, তা বলতে পারেননি জোছনা। 

পরশু (২১ জুলাই) রাতে এয়ার এরাবিয়ার একটি বিমানে গৃহকর্মী হিসেবে গিয়ে নির্যাতনের শিকার হওয়া ৪৩ জন নারী দেশে ফিরেছেন। তারা সকলে সৌদির ইমিগ্রেশন ক্যাম্পে ছিলেন। তাদের মধ্যে রেখাও ছিলেন একজন। 

সৌদি ফেরত অন্য নারীদের অবস্থা স্বাভাবিক মনে হলেও রেখা ছিলেন পুরোপুরি অস্বাভাবিক। শাহজালাল বিমানবন্দরে ফ্লাইট থেকে নামার পর তাকে এক নারীর মাধ্যমে বের করে আনা হয়। এরপর তাকে কিছুক্ষণের জন্য একটি মালবাহী স্ট্রেচারে বসিয়ে রাখা হয়। পরে তার হাতে ব্র্যাকের অভিবাসন শাখা থেকে আগত স্বেচ্ছাসেবকরা খাবারের প্যাকেট তুলে দেন। সেই খাবার খাওয়ার ফাঁকে ফাঁকে জোছনার কথা হয় সাংবাদিকদের।

সৌদি ফেরত ওই নারী মাঝেমধ্যে তার বাবার নাম, গ্রাম, জেলার নাম বলতে পারলেও পরক্ষণই আবার সব ভুলে যাচ্ছিলেন। বারবার সৌদির সেই বাসার মালিকের নির্যাতনের গল্পগুলো বলছিলেন আর বাংলা-আরবি মিশিয়ে কী কী সব বলছিলেন! বারবার তার শরীরে ইঞ্জেকশন পুশ করার কথাও বলছিলেন। তার শরীরের বিভিন্ন জায়গায় বাসার মালিক কেন ইঞ্জেকশন পুশ করতেন, তা তিনি নিজেও জানতেন না। 

রেখার ভাষ্য, খারাপ কাজ করতে চাইলে বাঁচার জন্য তিনি সবার সামনে বসে নামাজ পড়তেন। তার শরীরে ৩০টা ইঞ্জেকশন দেওয়া হয়েছে। তার মালিক বলতেন, ইদরা (আরবিতে ইঞ্জেকশন) ভালো, এটা বলেই পুশ করতো। 

‘সুঁই ফুটানোর লগে লগে আমার মাথা ঘুরান দিয়া পইরা যাইতাম। মাটিত পইড়া অজ্ঞান হইয়া যাইতাম। ওরা আমারে মাইরা পাগল বানাইছে। আল্লাহ ওগো বিচার কইরবে।’ 

রেখা আরও জানান, তার কোনো এক সময় বিয়ে হয়েছিল। কিন্তু স্বামীর সঙ্গে সংসার করা হয়নি। সৌদি যাওয়ার আগ মুহূর্ত পর্যন্ত বাবার বাড়িতেই থাকতেন। বাড়তি আয়ের আশায় দালালের মাধ্যমে সৌদি পাড়ি জমান তিনি। মানসিক ভারসাম্যহীন হয়ে রেখা যে দেশে ফিরছেন, খবরটি সে আসার দিন পর্যন্ত জানতে না তার পরিবারের সদস্যরা। 

পরে তার পরিবারকে ব্র্যাকের অভিবাসন শাখার পক্ষ থেকে যোগাযোগ করে জানানো হয়েছে। অবশ্য এখনো ব্র্যাকের অভিবাসন শাখায় তাকে রাখা হয়েছে। 

আগামীকাল (২৪ জুলাই) রেখাকে মানসিক হাসপাতালে ভর্তি করা হতে পারে বলে জানিয়েছেন অভিবাসন শাখার সংশ্লিষ্টরা। 


অরিন/নিউজ টোয়েন্টিফোর


মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন অভিনেত্রী তারিন
'নির্বাচন পেছানোর বিষয় ইসির সভায় সিদ্ধান্ত নেয়া হবে'
'বিএনপি সুষ্ঠু নির্বাচন চায়, অন্য দিকে সহিংসতা করে'
'দাবিগুলো বিবেচনার আশ্বাস দিয়েছে ইসি'
চট্টগ্রামে পুলিশ বক্স ভাংচুর, গাড়িতে আগুন
'নয়াপল্টনে হামলাকারীদের ভিডিও ফুটেজ দেখে ব্যবস্থা'
‘বিনা উসকানিতে’ এটা করল বিএনপি: কাদের
‘আমাদের নির্বাচনে যাওয়ার দরকার নেই’
লালমনিরহাটে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদকবিক্রেতা গুলিবিদ্ধ
ফকিরাপুল-কাকরাইল বিএনপির দখলে
ডেসটিনি চেয়ারম্যানের ৩ বছর কারাদণ্ড
নয়াপল্টনে পুলিশ-বিএনপি সংঘর্ষ
খালেদার মুক্তি নিয়ে প্রশ্নে জাতিসংঘ নিশ্চুপ
বিকেলে ঢাকায় আসছে উইন্ডিজ দল
‘থ্যাংক ইউ পিএম’ প্রচার আইনের লঙ্ঘন: রিজভী
ক্যালিফোর্নিয়ায় দাবানলে নিহত বেড়ে ৫০
নাটোরে নৈশকোচের চাপায় বৃদ্ধা নিহত
অতিরিক্ত ফি আদায়, এলাকাবাসীর প্রতিবাদ সভা
আ.লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার আজ
বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার ১৮ নভেম্বর
শিবগঞ্জে আমগাছে বৃদ্ধের ঝুলন্ত মরদেহ
মাদারীপুরে বাস চাপায় যুবক নিহত
ইসলাম গ্রহণকারী ভারতীয় সেই নারী খুন
মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন অভিনেত্রী তারিন
ফরিদপুর-৪ আসনে আলোচনায় সেলিম
'নির্বাচন পেছানোর বিষয় ইসির সভায় সিদ্ধান্ত নেয়া হবে'
'বিএনপি সুষ্ঠু নির্বাচন চায়, অন্য দিকে সহিংসতা করে'
'পুলিশ রাষ্ট্রের কর্মচারী, প্রতিপক্ষ ভাববেন না'
বিএনপির মনোনয়ন কিনলেন নাজমুল হুদার মেয়ে
'দাবিগুলো বিবেচনার আশ্বাস দিয়েছে ইসি'
চট্টগ্রামে পুলিশ বক্স ভাংচুর, গাড়িতে আগুন
'নয়াপল্টনে হামলাকারীদের ভিডিও ফুটেজ দেখে ব্যবস্থা'
পীরগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত
কালীগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় অজ্ঞাত নারী নিহত 
ভুরুঙ্গামারীতে হানাদার মুক্ত দিবস পালন 
নোয়াখালীতে বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস পালিত
‘বিনা উসকানিতে’ এটা করল বিএনপি: কাদের
‘আমাদের নির্বাচনে যাওয়ার দরকার নেই’
লালমনিরহাটে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদকবিক্রেতা গুলিবিদ্ধ
ফকিরাপুল-কাকরাইল বিএনপির দখলে
ইতালিতে সন্তান হলে জমি পুরস্কার
নির্বাচন করবেন হিরো আলম!
৩০ ডিসেম্বর নির্বাচন ‘উদ্দেশ্যপ্রণোদিত’: রব
বিএনপিকে চাঙ্গা করতে আসছেন জোবাইদা
চীন সফরে বিএনপির প্রতিনিধি দল
মাশরাফির নির্বাচন নিয়ে যা বললেন তার বাবা
নির্বাচনের তারিখ চূড়ান্ত করেছে ইসি!
'পুলিশ রাষ্ট্রের কর্মচারী, প্রতিপক্ষ ভাববেন না'
হামাসের ক্ষেপণাস্ত্রে ইসরাইলের সেনাবাস ভস্মীভূত
বিএনপির কাছে ১০০ আসন চাচ্ছেন শরিকরা
মৃত্যুর আগে যে কথা বলেন খাসোগি
আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র কিনবেন মাশরাফি
সংসদ নির্বাচনে যাচ্ছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট
ইসলাম গ্রহণকারী ভারতীয় সেই নারী খুন
চাঁদা চাওয়া সেই এসআই বরখাস্ত
খাসোগি হত্যাকাণ্ডে ইসরায়েলি প্রযুক্তি
২০ দল বেড়ে হলো ২৩ দলীয় জোট
বয়স বাড়বে কিন্তু শক্তি কমবে না
ফকিরাপুল-কাকরাইল বিএনপির দখলে
‘বিনা উসকানিতে’ এটা করল বিএনপি: কাদের

সব খবর