১৫ নভেম্বর ,বৃহস্পতিবার, ২০১৮

শিরোনাম

> সোশ্যাল মিডিয়া

 

নিউজ টোয়েন্টিফোর অনলাইন

২১ অক্টোবর ,রবিবার, ২০১৮ ১৬:২২:২৬

মাসুদা ভাট্টি ভীষণরকম চরিত্রহীন: তসলিমা নাসরিন


মাসুদা ভাট্টি ভীষণরকম চরিত্রহীন: তসলিমা নাসরিন

মাসুদা ভাট্টি ও তসলিমা নাসরিন


কে মঈনুল হোসেন, কী করেন, কী তাঁর চরিত্র, কী তাঁর আদর্শ আমি জানি না, তবে জানি মাসুদা ভাট্টি একটা ভীষণ রকম চরিত্রহীন মহিলা। চরিত্রহীন বলতে আমি কোনওদিন এর ওর সঙ্গে শুয়ে বেড়ানো বুঝি না। চরিত্রহীন বলতে বুঝি, অতি অসৎ, অতি লোভী, অতি কৃতঘ্ন, অতি নিষ্ঠুর, অতি স্বার্থান্ধ, অতি ছোট লোক। মাসুদা ভাট্টি এসবের সবই।

মহিলাটির জন্য ১৯৯৬ বা ১৯৯৭ সালে আমার কাছে খুব করে আব্দার করেছিলেন আবদুল গাফফার চৌধুরী। লন্ডন থেকে স্টকহোমে আমাকে ফোন করে বলেছিলেন, 'মাসিদা ভাট্টি বাংলাদেশের মেয়ে। এক পাকিস্তানি লোককে বিয়ে করে এখানে ছিল। পাকিস্তানির সঙ্গে তালাক হয়ে গেছে। এখন ব্রিটেন থেকে ওকে তাড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে। এখন তুমিই একমাত্র বাঁচাতে পারো ওকে। ওর জন্য ব্রিটিশ সরকারকে একটা চিঠি লিখে দাও।

লিখে দাও মাসুদা ভাট্টি বাংলাদেশে তোমার পাবলিশার ছিল, তোমার জন্য আন্দোলন করেছে। ও যদি এখন দেশে ফিরে যায়, ওকে মেরে ফেলবে মৌলবাদিরা'। আমি বললাম, 'মহিলাকে আমি চিনিই না। আর আপনি বলছেন ও আমার পাবলিশার ছিল? আমি মিথ্যে বলি না। আমি মিথ্যে কথা বলতে পারবো না।' এরপর ওই মহিলা আমাকে ফোন করে কান্নাকাটি, আমাকে বাঁচান। আপনি না বাঁচালে আমি মরে যাবো জাতীয় কান্না। কাউকে কাঁদতে দেখলে নিজের চোখেও জল চলে আসে। ব্রিটিশ সরকারের কাছে মাসুদা ভাট্টিকে না তাড়ানোর জন্য অনুরোধ করলাম। মহিলার জন্য মিথ্যে কথা আমাকে লিখতে হলো, লিখতে হলো, আমার পাবলিশার ছিল সে, দেশে ফিরলে তাকে মেরে ফেলবে মৌলবাদিরা। তখন আমার খুব নাম ডাক। আমার চিঠির কারণে মাসুদা ভাট্টির পলিটিক্যাল এসাইলাম হয়ে গেল, ব্রিটেনের নাগরিকত্বও হয়ে গেল।

তারপর কী হলো? তারপর ২০০৩ সালে আমার আত্মজীবনীর তৃতীয় খণ্ড 'ক' যখন বাংলাদেশে বেরোলো, আমি কেন নারী হয়ে দেশের এক বিখ্যাত পুরুষের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ করেছি, আমি কেন নারী হয়ে নিজের যৌনতার কথা লিখেছি, সারা দেশের নারী-বিদ্বেষী আর ধর্মান্ধ মৌলবাদি গোষ্ঠি উন্মাদ হয়ে উঠলো আমাকে অপমান আর অপদস্থ করার জন্য, আমাকে অবিরাম অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালি তো দিতেই লাগলো, আমার বিরুদ্ধে কুৎসা রটাতে শুরু করলো, সেই মিছিলে সামিল হলো মাসুদা ভাট্টি। আমার বিরুদ্ধে এ যাবৎ যত কুৎসিত লেখা লিখেছে লোকে, সর্বকালের সর্বকুৎসিত লেখাটি লিখেছে মাসুদা ভাট্টি। সবচেয়ে জঘন্য, সবচেয়ে অবিশ্বাস্য, সবচেয়ে ভয়ঙ্কর, সবচেয়ে বীভৎস সে লেখা। এত ভয়াবহ আক্রমণ আমার চরমতম শত্রুও আমাকে কোনওদিন করেনি। ক বইটি নাকি ল্যাম্পপোস্টের নিচে বসে শরীরে ঘা ওলা রাস্তায় পড়ে থাকা এক বুড়ি বেশ্যার আত্মকথন।

সংশ্লিষ্ট খবর:ব্যারিস্টার মঈনুলের বিরুদ্ধে মামলা করলেন মাসুদা ভাট্টি

সংশ্লিষ্ট খবর:ব্যারিস্টার মঈনুলের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

মাসুদা ভাট্টি আমার উপকারের জবাব ওভাবেই দিয়েছিল। ও যদি চরিত্রহীন না হয়, দুনিয়াতে চরিত্রহীন কে?

আজ দেশের ৫৫ জন বিশিষ্ট সম্পাদক ও সিনিয়র সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টির পক্ষে লড়ছেন কারণ কেউ তাকে চরিত্রহীন বলেছে। যত অশ্লীল শব্দ বাক্য পৃথিবীতে আছে, তার সবই আমার বিরুদ্ধে উচ্চারিত হচ্ছে নব্বই দশকের শুরু থেকে। আমি তো জনপ্রিয় কলাম লেখক ছিলাম তখন, জনপ্রিয় লেখক ছিলাম, কই কোনও বিশিষ্ট সম্পাদক আর কোনও সিনিয়র সাংবাদিককে তো আমার বিরুদ্ধে হওয়া লাগাতার অন্যায়ের বিরুদ্ধে কোনও প্রতিবাদ করতে কোনওদিন দেখিনি। আমার মাথার দাম ঘোষণা করা হলো, আমার বিরুদ্ধে লক্ষ লোকের লং মার্চ হলো, সারাদেশে মিছিল হলো, সরকার একের পর এক আমার বই নিষিদ্ধ করলো, আমার মত প্রকাশের বিরুদ্ধে মামলা করলো, আমাকে দেশ থেকে তাড়িয়ে দিল, কই দেশের কোনও সম্পাদক বা সাংবাদিক কেউ তো টুঁ শব্দ করেনি। এই যে আজ ২৪ বছর আমাকে অন্যায়ভাবে কোনও সরকারই দেশে ফিরতে দিচ্ছে না, কোনও বিশিষ্ট জন তো মুখ খোলেন না। একজনের বেলায় বোবা, আরেকজনের বেলায় বিপ্লবী, এ খেলার নাম কী?

(তসলিমা নাসরিনের ফেসবুক পেজ থেকে সংগৃহীত)

আরও পড়ুন: তসলিমা নাসরিনের সমালোচনার জবাবে যা বললেন মাসুদা ভাট্টি


মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন অভিনেত্রী তারিন
'নির্বাচন পেছানোর বিষয় ইসির সভায় সিদ্ধান্ত নেয়া হবে'
'বিএনপি সুষ্ঠু নির্বাচন চায়, অন্য দিকে সহিংসতা করে'
'দাবিগুলো বিবেচনার আশ্বাস দিয়েছে ইসি'
চট্টগ্রামে পুলিশ বক্স ভাংচুর, গাড়িতে আগুন
'নয়াপল্টনে হামলাকারীদের ভিডিও ফুটেজ দেখে ব্যবস্থা'
‘বিনা উসকানিতে’ এটা করল বিএনপি: কাদের
‘আমাদের নির্বাচনে যাওয়ার দরকার নেই’
লালমনিরহাটে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদকবিক্রেতা গুলিবিদ্ধ
ফকিরাপুল-কাকরাইল বিএনপির দখলে
ডেসটিনি চেয়ারম্যানের ৩ বছর কারাদণ্ড
নয়াপল্টনে পুলিশ-বিএনপি সংঘর্ষ
খালেদার মুক্তি নিয়ে প্রশ্নে জাতিসংঘ নিশ্চুপ
বিকেলে ঢাকায় আসছে উইন্ডিজ দল
‘থ্যাংক ইউ পিএম’ প্রচার আইনের লঙ্ঘন: রিজভী
ক্যালিফোর্নিয়ায় দাবানলে নিহত বেড়ে ৫০
নাটোরে নৈশকোচের চাপায় বৃদ্ধা নিহত
অতিরিক্ত ফি আদায়, এলাকাবাসীর প্রতিবাদ সভা
আ.লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার আজ
বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার ১৮ নভেম্বর
শিবগঞ্জে আমগাছে বৃদ্ধের ঝুলন্ত মরদেহ
মাদারীপুরে বাস চাপায় যুবক নিহত
ইসলাম গ্রহণকারী ভারতীয় সেই নারী খুন
মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন অভিনেত্রী তারিন
ফরিদপুর-৪ আসনে আলোচনায় সেলিম
'নির্বাচন পেছানোর বিষয় ইসির সভায় সিদ্ধান্ত নেয়া হবে'
'বিএনপি সুষ্ঠু নির্বাচন চায়, অন্য দিকে সহিংসতা করে'
'পুলিশ রাষ্ট্রের কর্মচারী, প্রতিপক্ষ ভাববেন না'
বিএনপির মনোনয়ন কিনলেন নাজমুল হুদার মেয়ে
'দাবিগুলো বিবেচনার আশ্বাস দিয়েছে ইসি'
চট্টগ্রামে পুলিশ বক্স ভাংচুর, গাড়িতে আগুন
'নয়াপল্টনে হামলাকারীদের ভিডিও ফুটেজ দেখে ব্যবস্থা'
পীরগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত
কালীগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় অজ্ঞাত নারী নিহত 
ভুরুঙ্গামারীতে হানাদার মুক্ত দিবস পালন 
নোয়াখালীতে বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস পালিত
‘বিনা উসকানিতে’ এটা করল বিএনপি: কাদের
‘আমাদের নির্বাচনে যাওয়ার দরকার নেই’
লালমনিরহাটে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদকবিক্রেতা গুলিবিদ্ধ
ফকিরাপুল-কাকরাইল বিএনপির দখলে
ইতালিতে সন্তান হলে জমি পুরস্কার
নির্বাচন করবেন হিরো আলম!
৩০ ডিসেম্বর নির্বাচন ‘উদ্দেশ্যপ্রণোদিত’: রব
বিএনপিকে চাঙ্গা করতে আসছেন জোবাইদা
চীন সফরে বিএনপির প্রতিনিধি দল
মাশরাফির নির্বাচন নিয়ে যা বললেন তার বাবা
নির্বাচনের তারিখ চূড়ান্ত করেছে ইসি!
'পুলিশ রাষ্ট্রের কর্মচারী, প্রতিপক্ষ ভাববেন না'
হামাসের ক্ষেপণাস্ত্রে ইসরাইলের সেনাবাস ভস্মীভূত
বিএনপির কাছে ১০০ আসন চাচ্ছেন শরিকরা
মৃত্যুর আগে যে কথা বলেন খাসোগি
আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র কিনবেন মাশরাফি
সংসদ নির্বাচনে যাচ্ছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট
ইসলাম গ্রহণকারী ভারতীয় সেই নারী খুন
চাঁদা চাওয়া সেই এসআই বরখাস্ত
খাসোগি হত্যাকাণ্ডে ইসরায়েলি প্রযুক্তি
২০ দল বেড়ে হলো ২৩ দলীয় জোট
বয়স বাড়বে কিন্তু শক্তি কমবে না
‘বিনা উসকানিতে’ এটা করল বিএনপি: কাদের
ফকিরাপুল-কাকরাইল বিএনপির দখলে

সব খবর