২৬ মে ,রবিবার, ২০১৯

শিরোনাম

> অফবিট

 

নিউজ টোয়েন্টিফোর অনলাইন

২৯ অক্টোবর ,সোমবার, ২০১৮ ০৯:০৫:০০

মৃত্যুর পরের বাড়ি বানাচ্ছেন যিনি


মৃত্যুর পরের বাড়ি বানাচ্ছেন যিনি

বাড়িটি শেষ হতে লাগবে আরও ৪ বছর। ইনসেটে মান্দুলানি।


মৃত্যুর পর মানুষ যাতে ভুলে না যায় সেজন্য বিপুল অর্থ খরচ করে নিজের ও পরিবারের জন্য বাড়িসদৃশ সমাধিক্ষেত্র তৈরি করছেন তানজানিয়ার নজোম্বের এক বাসিন্দা। বিষয়টি নিয়ে ওই এলাকায় ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়েছে। কারণ, সেখানে এখন পর্যন্ত কোন সাধারণ মানুষ এত টাকা খরচ করে সমাধি তৈরি করেনি, তাও আবার নিজের জন্য!

অ্যান্টন মান্দুলানি নামের ওই ব্যক্তি চান, তাকে ও তার তিন স্ত্রীকে ওই এলাকার মানুষ মৃত্যুর পরেও মনে রাখুক। এজন্যই এই সমাধিক্ষেত্র। এরইমধ্যে পাঁচ হাজার ডলার খরচ করে ফেলেছেন। সমাধিক্ষেত্রটি সমাপ্ত হতে এখনো বছর চারেক সময় লাগবে।

বাইরে দেখে নির্মাণ কাজের ধরণ দেখে মনে হবে যেন কোন বাড়ি বানানো হচ্ছে। ভেতরের চিত্র সম্পূর্ণ আলাদা। সেখানে রয়েছে ১২ মিটার গভীর একটি সমাধি, যা হবে অ্যান্টন মান্দুলামি এবং তার তিন স্ত্রীর মৃত্যুর পরের ঠিকানা। এমন একটি জায়গায় নিজের শেষ ঠিকানা করা অ্যান্টনির সারাজীবনের স্বপ্ন। আট বছর ধরে এই সমাধির কাজ চলছে।

অ্যান্টন মান্দুলানি বলছেন, ''আমি এই সমাধি তৈরির সিদ্ধান্ত নিয়েছি, কারণ আমি চাই না মানুষ আমাকে ভুলে যাক। সবমিলিয়ে এখানে এক হেক্টর জায়গা আছে, যেখানে আমি এবং আমার তিন স্ত্রীর সমাধি হবে। ভবিষ্যৎ প্রজন্ম এখান থেকে জানতে পারবে, আমি এই পরিবারের জন্য কি ছিলাম।''

অ্যান্টন মান্দুলানির বড় স্ত্রী ডামিয়ানা উইকেচ বলেন,''আমার মতে, তিনি চমৎকার একটি কাজ করেছেন। মৃত্যুর পরে নিজের থাকার জায়গাটি তিনি নিজেই তৈরি করে নিচ্ছেন। তার একজন স্ত্রী হিসেবে আমি খুশী, কারণ আমাদের একস্থানে সমাধি হবে।''

এদিকে দরিদ্র একটি গ্রামে এভাবে হাজার ডলার খরচ করে সমাধিস্থান তৈরি করার বিষয়টি সবারই নজরে পড়েছে। স্থানীয়দের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে।

গ্রামের বাসিন্দা জোনাস মেহেমা বলছেন, ''আমি মনে করি, এটা ঠিকই আছে। কারণ যখন থেকে তিনি প্রথাগত হার্বালের ব্যবসা শুরু করেন, তখন থেকেই তিনি বলেছেন যে, তিনি ইতিহাস তৈরি করতে চান, যাতে মৃত্যুর পরেও মানুষ তাকে ভুলে না যায়।''

গ্রামটির আরেকজন বাসিন্দা ভিক্টর নায়াগাওয়ার অভিমত অবশ্য ভিন্ন।

তিনি বলছেন, ''এটা এমন একটা কাজ যা আমাকে খুবই উদ্বিগ্ন করে তুলেছে। আমি কখনো দেখিনি কেউ এত অর্থ খরচ করে নিজের সমাধিক্ষেত্র তৈরি করে। নেতাদের ক্ষেত্রে এটা গ্রহণীয় হতে পারে, যেমন আমাদের জাতির পিতার জন্য। সত্যিই আমি অবাক হয়েছি।''

এদিকে শুধু সমাধিক্ষেত্রই নয়, মান্দুলামির আরেকটি শেষ ইচ্ছা নিয়েও তৈরি হয়েছে বিতর্ক। আর সেই ইচ্ছাটি হলো মৃত্যুর পর নিজের দেহ মমি করানো। তিনি চান, মৃত্যুর পরে তার দেহ মমি করা হবে এবং প্রকাশ্যে সেটি প্রদর্শন করা হবে।

প্রসঙ্গত, ওই সমাজে মনে করা হয়, মৃত্যু নিয়ে বেশি মাতামাতি দুর্ভাগ্য ডেকে আনে।

সূত্র: বিবিসি


প্রধান শিক্ষককে কোপাল সহকারী শিক্ষক
বৃষ্টিতে ভেসে উঠল ১০ বস্তা সরকারি ওষুধ!
নজরুল আমাদের প্রেরণা: শিক্ষামন্ত্রী
পরকীয়া প্রেম, ধাওয়া খেয়ে ব্যবসায়ীর মৃত্যু
জেএসএস এর কেন্দ্রীয় নেতাসহ আটক ৪
গাজীপু‌রে বসুন্ধরা সি‌মে‌ন্টের ইফতার মাহ‌ফিল
দারিদ্রতার যন্ত্রণায় দুই সন্তানকে হত্যা করেছে বাবা 
প্রস্তুতি ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের কাছেই হেরে গেল ভারত
'স্বাধীনতার সুফল প্রতিটি মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছাবে'
মুখ্যমন্ত্রীর পদ ছেড়ে দিতে চেয়ে ছিলাম: মমতা
কাল দেশে ফিরবেন রাষ্ট্রপতি
ফল ঘোষণার পর থেকে পশ্চিমবঙ্গে তাণ্ডব চলছে
পুলিশের হাতে নির্যাতিতা ছাত্রীর পাশে বিএনপি নেতারা
‘‌‌আ.লীগ বেহুলার বাসরঘরের কথা ভুলে গেছে’
বিনা অস্ত্রপচারে চার সন্তান!
ঝিনাইদহে কাজী নজরুল ইসলামের জন্মবার্ষিকী
ঝিনাইদহে দুপক্ষের সংঘর্ষে ১৫ জন আহত
জাফরুল সভাপতি রফিক সাধারণ সম্পাদক
‘ভয়ে মার্কিন সেনাদের হাত কাঁপছে!’
বাংলাদেশিকে ধরে নিয়ে গেল বিএসএফ
আ.লীগ নেতাকে হত্যা প্রতিবাদে বান্দরবানে হরতালে
প্রধান শিক্ষককে কোপাল সহকারী শিক্ষক
১২ বাংলাদেশি পেলো জাতিসংঘের ‘দ্যাগ হ্যামারশোল্ড মেডেল’
বৃষ্টিতে ভেসে উঠল ১০ বস্তা সরকারি ওষুধ!
নজরুল আমাদের প্রেরণা: শিক্ষামন্ত্রী
পরকীয়া প্রেম, ধাওয়া খেয়ে ব্যবসায়ীর মৃত্যু
জেএসএস এর কেন্দ্রীয় নেতাসহ আটক ৪
গাজীপু‌রে বসুন্ধরা সি‌মে‌ন্টের ইফতার মাহ‌ফিল
দারিদ্রতার যন্ত্রণায় দুই সন্তানকে হত্যা করেছে বাবা 
প্রস্তুতি ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের কাছেই হেরে গেল ভারত
'স্বাধীনতার সুফল প্রতিটি মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছাবে'
পারুলিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি নির্বাচিত হলেন মফিজুর রহমান
মুখ্যমন্ত্রীর পদ ছেড়ে দিতে চেয়ে ছিলাম: মমতা
কাল দেশে ফিরবেন রাষ্ট্রপতি
ফল ঘোষণার পর থেকে পশ্চিমবঙ্গে তাণ্ডব চলছে
পুলিশের হাতে নির্যাতিতা ছাত্রীর পাশে বিএনপি নেতারা
‘‌‌আ.লীগ বেহুলার বাসরঘরের কথা ভুলে গেছে’
বিনা অস্ত্রপচারে চার সন্তান!
ঝিনাইদহে কাজী নজরুল ইসলামের জন্মবার্ষিকী
ঝিনাইদহে দুপক্ষের সংঘর্ষে ১৫ জন আহত
আগামী ৫ জুন পবিত্র ঈদুল ফিতর!
মামা-ভাগনি পরিচয়ে হোটেলে উঠে ধর্ষণ!
পশ্চিমবঙ্গে আবারও মমতা
থাইরয়েডের সমস্যা দূর করার ৪ উপায়
ইরান ইস্যুতে রাশিয়ার হুঁশিয়ারি
বাড়াবাড়ি করবেন না, যুক্তরাষ্ট্রকে চীন
সাবেক খাদ্যমন্ত্রী সরকারকে বেকায়দায় ফেলেছে: রমেশ চন্দ্র
‘ভয়ে মার্কিন সেনাদের হাত কাঁপছে!’
অল্পের জন্য রক্ষা পেলেন তিন শতাধিক যাত্রী
নরসিংদীতে টয়লেট থেকে দুই শিশুর লাশ উদ্ধার
বিশ্বকাপ খেলা দেখা যেভাবে!
দ্বিতীয় মেঘনা ও গোমতী সেতুর উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
হার্ট ভালো-খারাপ বুঝবেন যেভাবে
অসহায় কৃষকের ধান কেটে দিল ছাত্রলীগ
মাছ চাষ নিয়ে স্বামীর সঙ্গে দ্বন্দ্ব, স্ত্রীকে গণধর্ষণ
দারিদ্রতার যন্ত্রণায় দুই সন্তানকে হত্যা করেছে বাবা 
বিজয়ীদের অভিনন্দন জানিয়েছেন মমতা 
বিশ্বকাপে বাংলাদেশকে ভয় করছেন ইংলিশ 
‘হামলা চালালেও নতি স্বীকার করব না’
যাত্রীকে যৌন নির্যাতন, গোল্ডেন লাইনের চালক আটক

সব খবর