২১ জুন ,শুক্রবার, ২০১৯

শিরোনাম

> আন্তর্জাতিক

 

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

১১ জানুয়ারী ,শুক্রবার, ২০১৯ ১৩:০৮:১৪

প্রেম নিয়ে দ্বন্দ্বে চাচার হাতে ভাতিজা খুন


প্রেম নিয়ে দ্বন্দ্বে চাচার হাতে ভাতিজা খুন

ভাতিজাকে খুন করলেন চাচা


চাচার বান্ধবীর সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা গড়ে উঠেছে ভাতিজার। এমন সন্দেহে চাচার হাতে খুন হলেন হতভাগা ভাতিজা। 

জানা গেছে, ঘুমন্ত ভাতিজাকে খুন করে ফ্ল্যাটের মেঝের নিচে দেহ পুঁতে রাখেন চাচা। এ ঘটনার পর পুলিশের চোখ এড়াতে শহর ছেড়ে অন্যত্র চলেও যান তিনি। ঘটনার প্রায় তিন বছর পর পুলিশের জালে ধরা পড়লেন চাচা।

রোববার ভারতের হায়দরাবাদ থেকে অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

দিল্লি পুলিশের বরাতে ভারতীয় গণমাধ্যম জানায়, গ্রেপ্তার হওয়া ওই ব্যক্তির নাম বিজয়কুমার মহারাণা। ঘটনার সময় নয়ডার একটি তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থায় কর্মরত ছিলেন তিনি। ৩৭ বছরের বিজয় আদতে ওড়িশার গঞ্জাম জেলার বাসিন্দা। বান্ধবী দিল্লিতে থাকা শুরু করলে তিনিও সেখানে চলে আসেন। ২০১২ থেকে দিল্লির দ্বারকা এলাকায় একটি ফ্ল্যাটে বসবাস করতে শুরু করেন তিনি। এর বছর তিনেক পর হায়দরাবাদ থেকে বিজয়ের ভাইপো জয় প্রকাশ তার ফ্ল্যাটে এসে ওঠে। এরপর থেকে বিজয়ের সঙ্গেই থাকতেন জয় প্রকাশ।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা জানিয়েছেন, সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বিজয়ের বান্ধবীর সঙ্গে জয় প্রকাশের ঘনিষ্ঠতা গড়ে ওঠে। নিজের বান্ধবীর সঙ্গে ভাতিজার এই ঘনিষ্ঠতায় মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন বিজয়। এরপর জয় প্রকাশকে পৃথিবী থেকেই সরিয়ে দেওয়ার পরিকল্পনা করেন।

দ্বারকা পুলিশের অতিরিক্ত ডেপুটি কমিশনার রাজেন্দ্রসিংহ সাগরের দাবি, ২০১৬ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি রাতে জয় প্রকাশকে ঘুমের মধ্যেই খুন করে বিজয়। ফ্ল্যাটে একটি সিলিং ফ্যানের মোটর রাখা ছিল মেরামতির জন্য। খুনের অস্ত্র হিসেবে সেটাকেই বেছে নেন বিজয়। ঘুমন্ত জয় প্রকাশের মাথা ওই ভারী মোটর দিয়ে থেঁতলে দেন তিনি। এরপর বিছানার চাদরে তার দেহ মুড়ে একটি কম্বল চাপা দিয়ে নিয়ে যান ফ্ল্যাটের ব্যালকনিতে। সেখানকার মাটি খুঁড়ে সেখানেই জয় প্রকাশের দেহ কবর দেন বিজয়। যাতে কারও সন্দেহ না হয়, তার জন্য তার উপর কয়েকটি ফুলগাছের চারাও পুঁতে দেন।

এই ঘটনার সপ্তাহখানেক পর ডাবরি থানায় জয় প্রকাশের নিখোঁজ হওয়ার ডায়েরি করে বিজয়। পুলিশের কাছে বিজয় দাবি করে, বন্ধুবান্ধবদের সঙ্গে বেরিয়ে আর ফিরে আসেনি ভাতিজা। এর মাস দু’য়েক পর ওই ফ্ল্যাট ছেড়ে দিল্লির নাঙ্গলোই এলাকায় চলে যান বিজয়। ২০১৭ সালে দিল্লির পাট চুকিয়ে হায়দরাবাদে থাকতে শুরু করেন তিনি।

গত বছরের অক্টোবরে দিল্লির ওই ফ্ল্যাটে মেরামতির কাজ শুরু হয়। সে সময়ই ওই ফ্ল্যাটের ব্যালকনি থেকে কঙ্কাল উদ্ধার হয়। শার্ট-নীল রঙের জ্যাকেট পরা একটি কঙ্কাল বিছানার চাদর ও কম্বলে মোড়া ছিল বলে জানিয়েছে পুলিশ। ফ্ল্যাটের মালিক বিক্রম সিংহকে জিজ্ঞাসাবাদ করে বিজয়ের নাম জানতে পারে পুলিশ। তদন্তে নেমে প্রথমে বিজয়ের কোনও খোঁজখবর পায়নি তারা। 

এমনকি, তার বন্ধুবান্ধব বা আত্মীয়-পরিজনেরাও তার খোঁজ দিতে পারেনি। সে সময়ই সন্দেহ হয় পুলিশের। তদন্তের পর পুলিশে জানতে পারে, নিজের মোবাইল নম্বর বদলে ফেলেছেন বিজয়।

এমনকি, ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে সমস্ত টাকা তুলে তা বন্ধও করে দিয়েছে। এরপর বিজয়ের খোঁজে তল্লাশি শুরু করে পুলিশ। মোবাইল টাওয়ারের সূত্র ধরেই গত ২৬ ডিসেম্বর বিশাখাপত্তনমে পৌঁছায় দিল্লি পুলিশের একটি দল। এরপর ১ জানুয়ারি পৌঁছে যায় হায়দরাবাদে। সেখান থেকেই গত রোববার বিজয়কে গ্রেপ্তার করে দিল্লিতে নিয়ে আসে পুলিশ।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)


শতরানের জুটি গড়ে ফিরলেন মাহমুদউল্লাহ
ফাঁসির আদেশপ্রাপ্ত আসামি অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার
 ফিফটি তুলে নেয়ার পর ফিরলেন তামিম
সাবেক এমপি রানার জামিন স্থগিত
বাংলাদেশকে ৩৮২ রানের টার্গেট দিল অস্ট্রেলিয়া
ডিআইজি মিজানের সম্পদ ক্রোক ও হিসাব জব্দ
ওয়ার্নারের শতকে বড় সংগ্রহের পথে অজিরা
হানিফ পরিবহনের ধাক্কায় দুই শিক্ষার্থী নিহত
যুবলীগ নেতা হত্যায় ৯ জনের মৃত্যুদণ্ড
টস জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ে অস্ট্রেলিয়া
রাজীবের পরিবারকে ৫০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেয়ার নির্দেশ 
মার্কিন গোয়েন্দা ড্রোন ভূপাতিত করল ইরান
তিনটি করে গাছ লাগানোর আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর
আজ বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ
‘বিনা চিকিৎসায় মুরসিকে হত্যা করা হয়েছে’
নারায়ণগঞ্জে ‌‘বন্ধুকযুদ্ধে’ ১৫ মামলার আসামি নিহত
বিএসএফের গুলিতে বাংলাদেশি নিহত
মাকে হত্যা করে মেয়েকে ধর্ষণ: জবানবন্দি দিলেন সাগর
যেভাবে উদ্ধার সোহেল তাজের ভাগ্নে সৌরভ
মোহম্মদপুরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবক নিহত
শতরানের জুটি গড়ে ফিরলেন মাহমুদউল্লাহ
ফাঁসির আদেশপ্রাপ্ত আসামি অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার
সুন্দরবনে ১৬ মাসে আটক ৬৩ দস্যু
'রোহিঙ্গা ইস্যুতে জাতিসংঘ অনেককিছুই গোপন করেছে'
 ফিফটি তুলে নেয়ার পর ফিরলেন তামিম
৪ বছরের শিশুকে ধর্ষণ
সাবেক এমপি রানার জামিন স্থগিত
বাংলাদেশকে ৩৮২ রানের টার্গেট দিল অস্ট্রেলিয়া
ডিআইজি মিজানের সম্পদ ক্রোক ও হিসাব জব্দ
পুলিশের সঙ্গে 'বন্দুকযুদ্ধে' মাদক ব্যবসায়ী নিহত 
ওয়ার্নারের শতকে বড় সংগ্রহের পথে অজিরা
হানিফ পরিবহনের ধাক্কায় দুই শিক্ষার্থী নিহত
যুবলীগ নেতা হত্যায় ৯ জনের মৃত্যুদণ্ড
টস জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ে অস্ট্রেলিয়া
রাজীবের পরিবারকে ৫০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেয়ার নির্দেশ 
মার্কিন গোয়েন্দা ড্রোন ভূপাতিত করল ইরান
তিনটি করে গাছ লাগানোর আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর
আজ বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ
‘বিনা চিকিৎসায় মুরসিকে হত্যা করা হয়েছে’
নারায়ণগঞ্জে ‌‘বন্ধুকযুদ্ধে’ ১৫ মামলার আসামি নিহত
যেভাবে উদ্ধার সোহেল তাজের ভাগ্নে সৌরভ
কুকুরের সঙ্গে মিলিত হতে চায় স্বামী, বিপাকে স্ত্রী!
ইতিহাস গড়ল টাইগাররা
গায়ে হলুদ অনুষ্ঠানে কাঁদলেন নুসরাত
চারদিন পর কমলো সোনার দাম
এইচআইভিতে আক্রান্ত ৪৬ জনকে শনাক্ত
ঢাবি ছাত্রীকে ধর্ষণ ও ভিডিও ধারণ, গ্রেপ্তার ১
মার্কিন গোয়েন্দা ড্রোন ভূপাতিত করল ইরান
মান্দায় মাকে হত্যার পর মেয়েকে ধর্ষণ
গ্রেপ্তার হলেন ওসি মোয়াজ্জেম
বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া ম্যাচে আবহাওয়ার পূর্বাভাসে যা বলছে!
ফেসবুকে প্রেম, জার্মান নারী এখন খুলনায়
বাংলাদেশকে ৩৮২ রানের টার্গেট দিল অস্ট্রেলিয়া
মিশরের ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্ট মুরসির মৃত্যু
দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকে যুবলীগ নেতাকে হত্যা
রিয়াদে ২৮ বাংলাদেশির মানবেতর জীবন-যাপন
‘ইরানের সঙ্গে যুদ্ধের ব্যাপারে সাবধান’
সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ফের সাকিব
‘ইসরাইল আমেরিকার বন্ধু নয়’
ঘুম থেকে জাগিয়ে ছাত্রকে বলাৎকার করল শিক্ষক

সব খবর