১৯ জুন , বুধবার, ২০১৯

শিরোনাম

> বাংলাদেশ

>> জনদুর্ভোগ

 

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা

৪ মে ,শনিবার, ২০১৯ ১৬:৩৯:১২

ফণীর প্রভাব

খুলনায় সাড়ে ৪ হাজার ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত


খুলনায় সাড়ে ৪ হাজার ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত

ঘূর্ণিঝড় ফণীর আঘাতে ঘরের চাল উড়ে গিয়ে রাস্তায়


ঘূর্ণিঝড় ফণীর আঘাতে খুলনার দাকোপ, কয়রা ও বটিয়াঘাটায় প্রায় সাড়ে ৪ হাজার ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে। এর মধ্যে ৯৯০টি ঘরবাড়ি
সম্পূর্ণভাবে বিধ্বস্ত হয়েছে। বাকি ৩ হাজার ৬৫০টি ঘর আংশিক বিধস্ত হয়েছে। ঘূণিঝড়ের কারণে বিভিন্ন স্থানের গাছপালা উপড়ে পড়েছে। খুলনা জেলা প্রশাসন সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

এছাড়া দাকোপ উপজেলায় রিংবাঁধ ভেঙ্গে দুটি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। কয়রায় ঘোগড়া, হরিণখোলা এলাকায় ক্ষতিগ্রস্থ বেড়িবাঁধ উপচে লোকালয়ে পানি প্রবেশ করেছে।

এদিকে ঘূর্ণিঝড় ফণীর প্রভাব শেষ হতেই সাইক্লোন সেল্টারহোম থেকে বাড়ি ফিরতে শুরু করেছে উপকূলের মানুষ।

কয়রা সদর ইউনিয়নের ইউপি সদস্য হরেন্দ্রনাথ সরকার বলেন, বাতাসের গতিবেগ কমে আসতেই বীনাপানি স্কুল কেন্দ্র, গোলখালি, জোড়সিং সাইক্লোন শেল্টার থেকে মানুষজন বাড়ি ফিরতে শুরু করেছে।

তিনি বলেন, কয়রার বেশ কয়েকটি পয়েন্টে বেড়িবাঁধ এখনো ঝুকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। যে কোনো সময় বাঁধ ভেঙ্গে বিস্তির্ণ এলাকা প্লাবিত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবকরা বাঁধ মেরামতে কাজ করছেন।

খুলনা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন জানান, ঘূর্ণিঝড়ের সময় ৩৫০টি সেল্টারহোম ও ৫শ’র বেশি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রায় ২ লাখ ৫২ হাজার মানুষ আশ্রয় নেয়। সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি সাড়ে ৩ হাজার স্বেচ্ছাসেবক ঘূর্ণিঝড়ের ক্ষতি মোকাবেলায় কাজ করছেন।

খুলনা নেভাল এরিয়া কমান্ডার কমডোর এম মোজাম্মেল হক জানান, ঘুর্ণিঝড় পরবর্তী জরুরী উদ্ধার, ত্রাণ ও চিকিৎসা সহায়তায়
নৌবাহিনীর ৩২টি জাহাজ প্রস্তুত রয়েছে। এরই মধ্যে খুলনা, সাতক্ষীরা ও বরগুনা দুর্গত এলাকায় নৌবাহিনীর চারটি জাহাজ জরুরী ত্রাণ বিতরণে কাজ করছে। নৌবাহিনীর পক্ষ থেকে প্রায় দুই হাজার পরিবারের তিনদিনের শুকনা খাবার সরবরাহ করা হবে।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/শাহীন/তৌহিদ)


জামিন পেলেন সাবেক এমপি রানা
মাদারীপুরে ছাত্রলীগ কর্মী খুন
চয়ন হত্যা: তিনজনের মৃত্যুদণ্ড
রোহিঙ্গা সঙ্কট সমাধানে কূটনৈতিক উদ্যোগ
গ্রীনলাইন পরিবহনের বাসের ধাক্কায় নিহত ১
জাল টাকা তৈরির মেশিনসহ প্রতারক আটক
যাত্রাবাড়ীতে দোকানে ঢুকে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা
ঢাবি ছাত্রীকে ধর্ষণ ও ভিডিও ধারণ, গ্রেপ্তার ১
সমকামিতায় বাধ্য করায় শ্রমিকনেতাকে হত্যা
বগুড়ায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ আহত যুবকের মৃত্যু
মাদারীপুর সদর উপজেলা চেয়ারম্যানের বাসায় হামলা
ফেসবুকে প্রেম, জার্মান নারী এখন খুলনায়
খুলনায় আ.লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীর জয়
নি‌খোঁজের ১৬ ঘণ্টা পর শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার
লঞ্চে আগুন
'উপজেলার শেষ ধাপের ভোট মোটামুটি সুষ্ঠু হয়েছে'
রাজধানীতে পেট্রোল পাম্পে আগুন নিয়ন্ত্রণে
একনেকের বৈঠকে ১১ প্রকল্প অনুমোদন
বনানীতে ভবনে আগুন
দুই মামলায় ৬ মাসের জামিন পেলেন খালেদা জিয়া
জামিন পেলেন সাবেক এমপি রানা
মাদারীপুরে ছাত্রলীগ কর্মী খুন
চয়ন হত্যা: তিনজনের মৃত্যুদণ্ড
নলডাঙ্গায় আ.লীগ প্রার্থী আসাদ বিজয়ী
রোহিঙ্গা সঙ্কট সমাধানে কূটনৈতিক উদ্যোগ
শংকরপুরে গণপিটুনিতে সন্ত্রাসী নিহত
ভোট কেন্দ্র থেকে এএসআই’র পিস্তল খোয়া
গ্রীনলাইন পরিবহনের বাসের ধাক্কায় নিহত ১
জাল টাকা তৈরির মেশিনসহ প্রতারক আটক
যাত্রাবাড়ীতে দোকানে ঢুকে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা
জামালগঞ্জে আ.লীগ প্রার্থী ইফসুফ আল আজাদ বিজয়ী
ঢাবি ছাত্রীকে ধর্ষণ ও ভিডিও ধারণ, গ্রেপ্তার ১
সমকামিতায় বাধ্য করায় শ্রমিকনেতাকে হত্যা
বগুড়ায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ আহত যুবকের মৃত্যু
মাদারীপুর সদর উপজেলা চেয়ারম্যানের বাসায় হামলা
ফেসবুকে প্রেম, জার্মান নারী এখন খুলনায়
খুলনায় আ.লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীর জয়
নি‌খোঁজের ১৬ ঘণ্টা পর শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার
লঞ্চে আগুন
কোম্পানীগঞ্জে দুই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার
যেসব পণ্যের দাম বাড়বে-কমবে!
কুকুরের সঙ্গে মিলিত হতে চায় স্বামী, বিপাকে স্ত্রী!
ইতিহাস গড়ল টাইগাররা
'বড় জায়গায় হাত দিলে হাত পুড়ে যায়'
গায়ে হলুদ অনুষ্ঠানে কাঁদলেন নুসরাত
বাজেটে কমবে স্বর্ণের দাম!
চারদিন পর কমলো সোনার দাম
কোপা আমেরিকায় আর্জেন্টিনার খেলার সূচি
গ্রেপ্তার হলেন ওসি মোয়াজ্জেম
সাক্ষীকে হাত-পা কেটে হত্যা করল আসামি পক্ষ
মান্দায় মাকে হত্যার পর মেয়েকে ধর্ষণ
মিশরের ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্ট মুরসির মৃত্যু
দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকে যুবলীগ নেতাকে হত্যা
রিয়াদে ২৮ বাংলাদেশির মানবেতর জীবন-যাপন
সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ফের সাকিব
সিগারেট ধরাতে দিয়াশলাই না দেওয়ায়...
‘ইরানের সঙ্গে যুদ্ধের ব্যাপারে সাবধান’
‘ইসরাইল আমেরিকার বন্ধু নয়’
ঘুম থেকে জাগিয়ে ছাত্রকে বলাৎকার করল শিক্ষক
সাইফউদ্দিনের শটে মাথা ফাটল বোলারের

সব খবর