২১ জুলাই ,রবিবার, ২০১৯

শিরোনাম

> বাংলাদেশ

>> বিবিধ

 

নাসিম উদ্দীন নাসিম, নাটোর প্রতিনিধি

১৩ মে ,সোমবার, ২০১৯ ২১:৪১:২৪

বিস্ময়ে ভরা নাটোরের ‘অচিন গাছ’


বিস্ময়ে ভরা নাটোরের ‘অচিন গাছ’

নাটোরের প্রাচীন ‘অচিন গাছ’


সুপ্রাচীন এক জনপদ নাটোর। নাটোর জেলা জুড়ে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে নানা রকম প্রাচীন নিদর্শন। জেলার সাতটি উপজেলার প্রত্যন্ত গ্রাম অঞ্চলে রয়েছে অনেক পুরনো গাছ, কালের সাক্ষী হিসেবে দাঁড়িয়ে আছে অনেক বৃক্ষ, তাদের মধ্যে একটি ‌‘অচিন’ গাছ, গাছের বয়স কত সে সম্পর্কে ধারণা পাওয়া যায় না। গাছটির সঠিক পরিচয়ও কেউ জানেন না। এলাকার পুরনো লোকটিও ছোট থেকেই এই গাছটিকে দেখছেন এমন অবস্থায়।

নাটোর জেলার সিংড়া উপজেলার সুকাশ ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের দুলশী গ্রামে কালের সাক্ষী হয়ে দাঁড়িয়ে আছে এই ‘অচিন’ গাছ। সমান্তরাল ভূমি থেকে পাহাড়ের মতো প্রায় ১৫ ফুট উঁচুতে এবং প্রায় ৫০ ফুট উচ্চতা ও চারপাশে আয়তনে প্রায় ১৫০ স্কায়ার ফুট, এর মূল আবাস, অসাধারণ কারুকাজ সজ্জিত শেকড় বহন করছে সুপ্রাচীন কালের সাক্ষী হয়ে।

স্থানীয় বাসিন্দা ৬০ বছরের বৃদ্ধা আবুল কালাম জানান, গাছটি ঠিক কত বছর আগে জন্মেছে তার দাদাও তাকে বলতে পারেনি।

এলাকার আরেক বাসিন্দা ৬৫ বছরের মো. মোকছেদ আলী জানালেন, গাছটিতে আঙুর ফলের মতো ফল ধরে। বৈশাখ মাসের শেষে এই ফল পাকে, পাঁকলে তা অত্যন্ত সুস্বাদু হয়। এলাকার ছোট ছোট বাচ্চারা এবং অনেক মানুষ এই ফল খান। এই গাছটি নিয়ে নানা রকম গল্প প্রচলিত রয়েছে। গ্রামবাসী ও আশেপাশের মানুষের বিশ্বাসের একটি বড় জায়গা জুড়ে রয়েছে এই খিরির গাছ।

মোছা. লাইলী বেগম জানালেন, এই গাছটি বহু বছর আগে হক সাহেব নামের একজন কর্তন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন এবং লোকলস্কর নিয়ে গাছ কাটার উদ্দেশ্যে এসেছিলেন কিন্তু কাটতে পারেনি। পরে দু- সপ্তাহের মধ্যে সেই ব্যক্তি মারা যায়, তখন থেকে গ্রামবাসী এই গাছটির উপরে একটি বিশ্বাস স্থাপন করে। দূর-দূরান্ত থেকে অনেক মানুষ এই বৃক্ষটি পরিদর্শন করতে আসে এবং অনেক মানুষ এইখানে রোগ ব্যাধির জন্য মানত করে এবং তারা অনেকেই এখানে এসে শিন্নি রান্না করে মানুষের মাঝে বিতরণ করে।

নাটোরের ঐতিহ্য সংস্কৃতির সুবিশাল অংশের কালের সাক্ষী এই গাছ। যদিও সঠিক রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে অবহেলা সহ্য করে দাঁড়িয়ে আছে স্থানীয়দের বিশ্বাসী এ গাছ। এলাকাবাসী মনে করেন যথাযথ কর্তৃপক্ষের যথেষ্ট ত্রুটি রয়েছে। তারপরেও যেন তারা গাছগুলোর দেখভালের জন্য উদ্যোগ গ্রহণ করেন।

মোছা. রমিছা বেগম জানান, গ্রামবাসীর অনেক দিনের দাবি, এই গাছটির চারপাশ দিয়ে পার বাঁধাই করে দেওয়ার, স্থানীয় সাংসদকে জানানো হয়েছিল দাবি সম্পর্কে, তিনি গাছটির পার বাঁধাই করে দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছিলেন।

এই গাছের বীজ পড়ে কোথাও কোনো চারা বা গাছ আজ পর্যন্ত জন্ম হয়নি বা কেউ হতেও দেখেননি।

এ ব্যাপারে সিংড়া উপজেলা বন কর্মকর্তা মো. মাহাবুবুর রহমান জানান, এই প্রাচীন বৃক্ষটি সম্পর্কে কোনো তথ্য আমাদের জানা নেই। আমরা এই গাছটিকে অচিন গাছ হিসেবেই জানি। তবে এই গাছটির পাতা এবং ডালসহ বিস্তারিত তথ্য আমরা গবেষণাগারে পাঠিয়েছি; যাতে এই গাছটি সম্পর্কে বিশদে জানতে পারি। গাছটি রক্ষার জন্য এ মর্মে একটি আবেদন করা হয়েছে মন্ত্রণালয়ে। এই গাছটির চারদিক বাঁধাই করার জন্য মন্ত্রণালয়ে বরাদ্দের অবেদন করা হয়েছে। বর্তমানে আমরা প্রতিনিয়ত রক্ষণাবেক্ষণের জন্য সব সময় নজর রেখেছি।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/নাসিম/তৌহিদ)


খাল-জলাশয়কে আগের অবস্থায় ফেরাব: প্রধানমন্ত্রী
শিশুর ছিন্ন মস্তক নিয়ে দৌড়ে পালাচ্ছিলেন যুবক, অতঃপর...
জাতীয় পার্টিতে কোনো বিভেদ নেই: জিএম কাদের
'রিফাত হত্যা পরিকল্পনায় মিন্নি সরাসরি জড়িত'
যুবকের অন্ডকোষ কাটল দুর্বৃত্তরা
রোহিঙ্গা ইস্যুতে নিরব জাপান এবং ইউরোপের অনেক দেশ
নওগাঁয় বজ্রপাতে গেল বৃদ্ধার প্রাণ
প্রধানমন্ত্রীর কাছে তসলিমা নাসরিনের খোলা চিঠি
‌‌জাতীয় পার্টির নতুন চেয়ারম্যান জিএম কাদের
চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে বনলতা এক্সপ্রেসের যাত্রা শুরু
গরুর সঙ্গে এ কেমন আচরণ!
গাজীপুরে আগুনে জুতার গুদাম ভস্মীভূত
‘তিন আইনজীবীর কেউ দাঁড়াননি মিন্নির পক্ষে’
রিফাত ফরাজীর ছোট ভাই গ্রেপ্তার
নওগাঁয় বাঁধ ভেঙ্গে ৩০ গ্রাম প্লাবিত
ওই ১১ পরিবারকে কোটি টাকা করে দিতে রিট
এইচএসসিতে ফেল করে ছাত্রীর আত্মহত্যা
আলোচনায় বসব যদি...
দল সাজাতে জিএম কাদেরের সংবাদ সম্মেলন আজ
উদ্ধার মরদেহের দুই পা ভাঙা
নাটোরে ধর্ষণ, নারী ও শিশু নির্যাতনের প্রতিবাদে মানববন্ধন
ক্ষেতলালে খাদ্য নিরাপত্তায় ইউএনও’র ব্যতিক্রমী উদ্যোগ
খাল-জলাশয়কে আগের অবস্থায় ফেরাব: প্রধানমন্ত্রী
শিশুর ছিন্ন মস্তক নিয়ে দৌড়ে পালাচ্ছিলেন যুবক, অতঃপর...
জাতীয় পার্টিতে কোনো বিভেদ নেই: জিএম কাদের
'রিফাত হত্যা পরিকল্পনায় মিন্নি সরাসরি জড়িত'
যুবকের অন্ডকোষ কাটল দুর্বৃত্তরা
রোহিঙ্গা ইস্যুতে নিরব জাপান এবং ইউরোপের অনেক দেশ
নওগাঁয় বজ্রপাতে গেল বৃদ্ধার প্রাণ
প্রধানমন্ত্রীর কাছে তসলিমা নাসরিনের খোলা চিঠি
‌‌জাতীয় পার্টির নতুন চেয়ারম্যান জিএম কাদের
চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে বনলতা এক্সপ্রেসের যাত্রা শুরু
গরুর সঙ্গে এ কেমন আচরণ!
গাজীপুরে আগুনে জুতার গুদাম ভস্মীভূত
‘তিন আইনজীবীর কেউ দাঁড়াননি মিন্নির পক্ষে’
রিফাত ফরাজীর ছোট ভাই গ্রেপ্তার
নওগাঁয় বাঁধ ভেঙ্গে ৩০ গ্রাম প্লাবিত
ওই ১১ পরিবারকে কোটি টাকা করে দিতে রিট
এইচএসসিতে ফেল করে ছাত্রীর আত্মহত্যা
আলোচনায় বসব যদি...
শিশুর ছিন্ন মস্তক নিয়ে দৌড়ে পালাচ্ছিলেন যুবক, অতঃপর...
৪১ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সবাই ফেল
প্রধানমন্ত্রীর কাছে তসলিমা নাসরিনের খোলা চিঠি
'রিফাত হত্যা পরিকল্পনায় মিন্নি সরাসরি জড়িত'
স্বামী ও দেবরকে কাজে পাঠিয়ে পুত্রবধূকে ধর্ষণ!
এরশাদের কবর জিয়ারত করলেন তার ছেলে সাদ এরশাদ
জিজ্ঞাসাবাদের পর মিন্নি গ্রেপ্তার
শাহরুখ কন্যার উদ্দাম নাচ ভাইরাল
বরগুনা পুলিশ লাইনে জিজ্ঞাসাবাদ মিন্নিকে
‘তিন আইনজীবীর কেউ দাঁড়াননি মিন্নির পক্ষে’
কীভাবে বুঝবেন সঙ্গী পরকীয়ায় জড়িত
রিফাত হত্যা: পাঁচ দিনের রিমান্ডে মিন্নি
বিচারকের প্রশ্নে মিন্নি নিরব
রিফাত ফরাজীর ছোট ভাই গ্রেপ্তার
সৌদিতে পাঁচ বাংলাদেশি হজযাত্রীর মৃত্যু
ওই ১১ পরিবারকে কোটি টাকা করে দিতে রিট
‌‌জাতীয় পার্টির নতুন চেয়ারম্যান জিএম কাদের
নারীর ছয় টুকরো করা মরদেহ উদ্ধার!
মাদ্রাসায় গরুর গোস্ত আছে সন্দেহে ভাঙচুর-অগ্নিসংযোগ
এরশাদের শেষ জানাজায় লাখো মানুষ

সব খবর